বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন রনিল বিক্রমাসিংহে



 

শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন দেশটির ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টি (ইউএনপি) নেতা রনিল বিক্রমাসিংহে। বৃহস্পতিবার (১২ মে) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।

রনিল বিক্রমাসিংহের দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির বরাত দিয়ে শ্রীলঙ্কার ডেইলি মিরর এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জানা গেছে, ইউএনপি নেতা রনিল বিক্রমাসিংহেকে শপথ বাক্য পাঠ করান লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির সরকারি বাসভবনে শপথ গ্রহণ করেন তিনি।

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন রনিল বিক্রমাসিংহে। এরপরই শোনা যায় শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন এই ইউএনপি নেতা। বিক্রমাসিংহের দল বিষয়টি নিশ্চিত করে।

শপথ গ্রহণের পর ওয়ালুকারমা মন্দিরে যাওয়ার কথা রয়েছে বিক্রমাসিংহের। সেখান থেকে ফিরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করবেন তিনি। রনিল বিক্রমাসিংহের জন্ম ১৯৪৯ সালের ২৪ মার্চ। সিলন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে পড়াশোনার পর সত্তরের দশকের মাঝামাঝি সময়ে রাজনীতিতে যোগ দেন তিনি।

৭৩ বছর বয়সী এই ইউএনপি নেতা দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে সংসদে রয়েছেন। তার ব্যাপক আন্তর্জাতিক সংযোগ আছে এবং তাকে একজন দক্ষ আলোচক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

গত সোমবার বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মাহিন্দা রাজাপাকসে। তার পদত্যাগের ফলে পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। এরপর মঙ্গলবার দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে বিরোধীদল সামাজি জানা বালাবউইগেয়ায়ার (এসজেবি) নেতা সাজিথ প্রেমাদাসাকে প্রথমে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু সাজিথ জানিয়েছিলেন, প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ করলেই কেবল তিনি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন। এরপর গতকাল রনিল বিক্রমাসিংহেকে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দেন প্রেসিডেন্ট।