বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বড় কোনো সমস্যা নেই তাসকিনের, আপাতত লাগছে না অস্ত্রোপচার



বাংলাদেশে তখন গভীর রাত। লন্ডন থেকে তাসকিন আহমেদ হোয়াটসঅ্যাপে ৩টি টেস্টের কথা জানিয়ে দোয়া চাইলেন, যেন অস্ত্রোপচার না লাগে। তাসকিনের চাওয়াই পূরণ হয়েছে আপাতত। তার কাঁধে অস্ত্রোপচার লাগছে না।

বুধবার (১১ মে) এমআরআইসহ তাসকিনের ৩টি টেস্ট করা হয়। রিপোর্ট আসতে আসতে বাংলাদেশে গভীর রাত। রিপোর্ট পেয়েই তাসকিন জানালেন, হালকা সমস্যা থাকলেও অস্ত্রোপচার লাগছে না।

রাইজিংবিডিকে তাসকিন বলেন, ‘ট্যান্ডিনোপ্যাথিতে (কাঁধ) হালকা সমস্যা আছে। এখন ইনজেকশন এবং রিহ্যাবের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করা হবে। যদি এর মাধ্যমে ঠিক না হয়, ভবিষ্যতে কোনো সমস্যা দেখা দেয় তাহলে অপারেশন লাগবে।’

তবে এই রিহ্যাব প্রক্রিয়া কতদিনের, লন্ডনে হবে নাকি ঢাকায় তা এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে লন্ডনে চিকিৎসা নিচ্ছেন তাসকিন। তিনিও অস্ত্রোপচার লাগবে না বলে রাইজিংবিডিকে নিশ্চিত করেছেন। তবে ভবিষ্যত পরিকল্পনা বিসিবির সঙ্গে পরামর্শের পর ঠিক করা হবে বলে জানান দেবাশীষ।

রাইজিংবিডিকে তিনি বলেন, ‘আমরা এখন সব তথ্য (রিপোর্ট) জোগাড় করছি চিকিৎসকদের কাছ থেকে। এরপর ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে পরামর্শ করে রিহ্যাবের পরিকল্পনা ঠিক করা হবে।’

কতদিন লাগতে পারে রিহ্যাব প্রক্রিয়া শেষ হতে? এটিও স্পষ্ট করে জানাতে পারেননি দেবাশীষ, ‘আসলে এটা এখন সরাসরি বলা যাচ্ছে না। এখানে কিছু জিনিস ব্যাখা করে দেখার প্রয়োজন আছে। আমি বিস্তারিতভাবে ব্যাখা করতে পারবো দেশে ফিরলে।’

কাঁধের চোটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষ না করেই দেশে ফিরছিলেন তাসকিন। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো সিরিজ সেরা হওয়ার পরও একটি টেস্ট খেলে ফিরতে হয় দেশে। একই কারণে নেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও। অবশেষে শুরু হয়েছে তাসকিনের চিকিৎসা, এবার সেরে উঠে দ্রুত মাঠে ফেরার পালা। তাকে যে বড্ড প্রয়োজন বাংলাদেশ দলের।