বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গরমে ফাংগাল ইনফেকশন থেকে বাঁচতে যা মেনে চলবেন



 

গরমে বিভিন্ন রোগের প্রকোপ বেড়ে যায়। প্রচণ্ড রোদের তাপের কারণে অতিরিক্ত ঘাম। এই ঘামের সঙ্গে আবার ধুলাবালি জমে চুলকানি কিংবা ফুসকুড়ির সৃষ্টি হয়। গরমে এ সমস্যা খুবই স্বাভাবিক।

চিকিৎসকরা বলছেন, গরমে ফাংগাল ইনফেকশন মারাত্মকভাবে বাড়তে পারে। ঘামের জামা পরে থাকার কারণে এ সমস্যা আরও বাড়ে।

বিশেষ করে যারা খেলোয়াড় কিংবা বাইরে দীর্ঘক্ষণ কাজ করেন তাদের পায়ে দাদ, নখে ছত্রাক, ত্বকে ফুসকুড়ি কিংবা গোপনাঙ্গে সমস্যা খুবই স্বাভাবিক। ডার্মাটফাইট কিংবা টিনিয়া পেডিস এখন উদ্বেগের কারণ!
বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরের যেসব স্থানে সহজেই ঘাম জমে যেমন- পায়ের ভাঁজ কিংবা বগলে ফাংগাল সংক্রমণ বেশি দেখা যায়। এর থেকে চুলকানি, লালভাব ও ফোলাভাবের সৃষ্টি হয়।

গরমে অত্যধিক আর্দ্রতা ও ঘামের কারণে ছত্রাকের সংক্রমণ বেড়ে যায়। অনেক সময় ত্বকে কাটা কাটা ভাব কিংবা ত্বকের ফুসকুড়ি হয়।

ভারতের চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ প্রদীপ আলাতের মতে, ত্বকে ছত্রাকের সংক্রমণ যে কোনো জায়গাতেই হতে পারে। সাধারণত এগুলো ত্বকে হালকা দাগের সৃষ্টি করে।

এর থেকে চুলকানি ও জ্বালাপোড়ার ভাব হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ কিংবা ক্রিম লাগালে তা সেরে যায়। তবে স্টেরয়েডযুক্ত ক্রিম এক্ষেত্রে এড়িয়ে চলা জরুরি।

এর পাশাপাশি অ্যান্টিফাঙ্গাল সাবান ও পাউডার ব্যবহার করতে হবে। অন্যের তোয়ালে বা পোশাক কখনোই ব্যবহার করবেন না। প্রয়োজনে দুদিন অন্তর বিছানার চাদর পরিষ্কার করুন।