বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হঠাৎ ঝড় এসে কেড়ে নিল শিক্ষকের স্ত্রী-ছেলে ও মেয়ের প্রাণ



 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে বয়ে যাওয়া ঘণ্টাব্যাপী প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড়ে মা- মেয়ে ও ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বহু ঘরবাড়ী, ফসল ও গাছপালার ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের সুলেমানপুর গ্রামের স্কুল শিক্ষক হারুন মিয়ার স্ত্রী মৌসুমি বেগম (৩৫) মেয়ে মাহিমা বেগম (৪) ও ছেলে হোসাইন আহমদ (১)।

স্থানীয়রা জানা যায়, স্কুল শিক্ষক হারুন মিয়ার টিন সেড ঘরের উপর পার্শ্ববর্তী দুটি বিশাল আকৃতির ঢেউয়া ও খস গাছ প্রচণ্ড ঝড়ে উপড়ে ঘরের উপর পড়ে। এতে চাপা পড়ে সাথে সাথেই তাদের তিনজনের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে।

পাটলী ইউপি চেয়ারম্যান আংগুর মিয়া যুগান্তরকে জানান, বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে প্রচণ্ড ঘূর্ণিঝড়ে বড় আকৃতির দুটি গাছ টিন ঘরের মধ্যে পড়ে চাপ দিলে মা ও ছেলে- মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার ৩ জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, পরিবারটি খুবই গরীব। স্ত্রী সন্তানদের হারিয়ে একটি বেসরকারি স্কুলের খন্ডকালীন শিক্ষক হারুন মিয়া এখন পাগলপ্রায়।

জগন্নাথপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, মা ও ছেলে- মেয়ের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।