মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাসে অর্ধেক যাত্রীর নির্দেশনা বাতিল, আসন অনুযায়ী নেয়া যাবে যাত্রী



 

করোনা মহামারি প্রতিরোধে গণপরিবহণে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহনের সরকারী ঘোষনা থেকে সরে এসেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এখন থেকে বাসে আসনসংখ্যা অনুযায়ী যাত্রী বহন করা যাবে। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ স্বাক্ষরিতে এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

০৯/ঢাসপমাস/২০২২ উল্লেখিত সূত্রের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগ (কভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরন করে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চালুর নিমিত্তে গতকাল বিআরটিএর কার্যালয়ে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মালিক-শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে যত সিট তত যাত্রী নিয়ে গাড়ী চলাচলের প্রস্তাব পেশ করা হয়। অদ্য-২০১৩ জানুয়ারি, ২০২২ বিকেলে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে গাড়ীতে যত সিট তত যাত্রী নিয়ে চলাচলের সিদ্ধান্ত মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। গাড়ীতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখাসহ গাড়ীর স্টাফ ও যাত্রীদের মাস্ক ব্যবহার ব্যাধ্যতামূলক থাকতে হবে এবং স্টাফদের করোনার টিকা সনদ পত্র সাথে রাখতে হবে। কোন অবস্থাতেই গাড়ীতে দাঁড়ানো যাত্রী বহন করা যাবে না।

গত ১০ জানুয়ারি করোনা মহামারি প্রতিরোধে ১১ দফা বিধিনিষেধ জারি করে সরকার। ১১ দফা বিধিনিষেধের ছয় নম্বর দফায় বলা হয়েছে, ট্রেন, বাস এবং লঞ্চে অর্ধেক যাত্রী নিতে হবে। সব যানের চালক ও সহকারীদের আবশ্যিকভাবে কোভিড-১৯ টিকা সনদধারী হতে হবে। এতে আরও বলা হয়, জনসাধারণকে অবশ্যই বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে সারাদেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।